সোমবার, নভেম্বর ২৩

মধ্যপ্রাচ্যে প্রবাসীরা জীবন-জীবিকা নিয়ে বিপাকে

করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবে গত তিন মাস ধরেই মধ্যপ্রাচ্যের বিভিন্ন দেশে লক্ষাধিক বাংলাদেশি তীব্র খাদ্যসংকটে পড়ছেন এবং বিশ্বব্যাপী অর্থনৈতিক মন্দার কারণে আরও অনেক বাংলাদেশি বেকার হয়ে পড়েছেন। বাংলাদেশি অভিবাসীরা ঘর ভাড়া দিতে, নিত্যপ্রয়োজনীয় সামগ্রী কিনতে এবং বাধ্যতামূলক করোনাভাইরাস পরীক্ষার ব্যয়ভার বহন করতে হিমশিম খাচ্ছেন। সৌদিতে অবৈধভাবে কাজ করা দুই থেকে তিন লাখ বাংলাদেশি তাদের বাসা ছেড়ে বের হন না। তাদের ভয় দেশটির কর্তৃপক্ষ এই অর্থনৈতিক মন্দার মধ্যে অবৈধ অভিবাসীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে পারে। বাহরাইনে প্রায় দুই লাখ বাংলাদেশি অভিবাসী শ্রমিকের মধ্যে প্রায় এক-চতুর্থাংশ পুরোপুরি বা সাময়িকভাবে কাজ হারানোয় আর্থিক সমস্যার মুখোমুখি হচ্ছে। দেশটিতে পরিচ্ছন্নকর্মী হিসেবে নিযুক্ত বেশির ভাগ শ্রমিক বেকার হয়ে পড়েছেন। ওআইসিতে বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি গোলাম মোসীহ জানান, প্রায় ৫০ লাখ বাংলাদেশি অভিবাসী মধ্যপ্রাচ্যে কাজ করেন। তাদের মধ্যে কমপক্ষে এক লাখ মানুষ প্রায় অনাহারে ছিলেন এবং বেশির ভাগই কাজের ব্যাপারে পড়েন অনিশ্চয়তায়। তাদের অনেকেই দুই থেকে আড়াই মাসেরও বেশি সময় ধরে কর্মহীন। এদের কাছে বাংলাদেশ সরকারের দেওয়া খাদ্যসামগ্রী পৌঁছে দেওয়া হয়েছে এবং বিভিন্ন ধরনের সহায়তাও দেওয়া হয়েছে। এছাড়া বর্তমান পরিস্থিতি মোকাবিলায় মধ্যপ্রাচ্যের দেশগুলোতে কর্মরত শ্রমিকদের স্বার্থরক্ষার জন্য দূতাবাসগুলো সম্ভাব্য সব চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।

Comments

comments

Powered by Facebook Comments