বুধবার, ফেব্রুয়ারি ২৪

পর্যটন

লালমনিরহাট হাতীবান্ধা তিস্তা ব্যারাজে বিনোদন প্রেমিদের ঢল

লালমনিরহাট হাতীবান্ধা তিস্তা ব্যারাজে বিনোদন প্রেমিদের ঢল

সিরাজুল ইসলাম - লালমনিরহাট প্রতিনিধিঃ করোনা ঝুঁকির মধ্যেই লালমনিরহাটের হাতীবান্ধা উপজেলার তিস্তা ব্যারাজ মুখর হয়ে উঠেছে শুক্রবার (০৭আগস্ট) মানুষের পদচারণায়। ঈদের দিন বিকেল থেকে তিস্তা ব্যারাজ এলাকায় মানুষের ঢল নামে। প্রতি ঈদে বা ১ লা বৈশাখ সপ্তাহের শুক্রবার শনিবার এছাড়াও দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে পিকনিক বা সেমিনার করতে ভির করে এই ব্যারাজে। করোনা কালে ভাটা পরলেও এবার ঈদের চিত্র ভিন্ন। বুধবার (০৬ আগস্ট) সরেজমিনে দেখা যায়, তিস্তা ব্যারাজ এলাকায় পরিবার-পরিজন নিয়ে ঘুরতে এসেছে মানুষ। শিশু-কিশোর ও তরুণ-তরুণীসহ নানা বয়সী মানুষের মিলনমেলায় পরিণত হয় তিস্তাপার। করোনা মহামারির মধ্যেই পরিবার-পরিজন নিয়ে ঘুরতে এসেছেন সবাই। ঈদের আনন্দ উপভোগ করতে তিস্তা ব্যারাজে এসেছেন তারা।বিনোদন কেন্দ্র হিসেবে এবার তিস্তা ব্যারাজ, মহিপুর শেখ হাসিনা সেতু ও তিনবিঘা করিডোরকে বেছে নিয়েছেন উত্তরবঙ্গের বিনোদনপ্রেমীরা। ঈদের চ
গ্রাম-বাংলার মাটির ঘর বিলুপ্তির পথে

গ্রাম-বাংলার মাটির ঘর বিলুপ্তির পথে

মোঃ হাবিবুর রহমান, ঘাটাইল (টাংগাইল) প্রতিনিধি: এক সময় টাংগাইলের ঘাটাইল উপজেলায় প্রতিটি এলাকায়ই ছিল মাটির ঘর। গ্রাম বাংলার ঐতিহ্যের নিদর্শন সবুজ ছায়া ঘেরা শান্তির নীড় যা এক সময় ছিল গ্রামের মানুষের কাছে প্রিয় ঘর মাটির ঘর। গরিবের এসি নামেও পরিচিত। কিন্তু কালের বিবর্তনে হারিয়ে যাচ্ছে মাটির বাড়ি গুলো। আগে ঘাটাইল উপজেলার প্রতিটি পাহাড়ি গ্রামেই নজরে পড়তো মাটির বাড়ি, ঝর বৃষ্টি থেকে বাঁচার পাশাপাশি প্রচন্ড গরম ও শীতে বসবাসের উপযোগী এসব মাটির ঘর এখন তেমন একটা দেখা মেলেনা। আধুনিকতার ছুয়ায় ইট,বালু, সিমেন্ট এর তলায় গ্রাম বাংলার ঐতিহ্য মাটির ঘর টি এখন প্রায় বিলুপ্তির পথে, হয়তোবা আগামী প্রজন্মের মানুষেরা ইতিহাসের পাতা বা যাদুঘর থেকে জানতে পারবে কোন এককালে ছিল মাটির বাড়ি। প্রাচীন কাল থেকেই এর প্রচলন ছিল, গ্রামের মানুষের কাছে এই মাটির ঘর ঐতিহ্যের প্রতীক ছিল। মাটি সহজলভ্য হওয়ার কারণে বাড়িটি সহজেই তৈরি করতে
করোনা মহামারীতে বিপর্যস্ত বিশ্বের পর্যটন খাত

করোনা মহামারীতে বিপর্যস্ত বিশ্বের পর্যটন খাত

ভাইমারে খুলছে রেস্তোরাঁ নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে জার্মান নগরীর মধ্যে ভাইমারে প্রথম আউটডোর রেস্তোরাঁ খোলা এবং অতিথিদের বসার অনুমতি (৬ মে থেকে) দেওয়া হয়েছে৷ রৌদ্রোজ্জ্বল দিনে লোকজন বিয়ার বা কফি হাতে স্বাভাবিক জীবনে ফেরার চেষ্টা করছেন৷ বাভারিয়ার বিয়ার গার্ডেনও খুলছে আগামী ১৮ মে বাভারিয়ার বিখ্যাত বিয়ার গার্ডেনগুলোর উপর থেকে লকডাউনের নিষেধাজ্ঞা উঠে যাবে৷ তবে অবশ্যই কঠোর স্বাস্থ্যবিধি মেনে পানাহার করতে হবে৷ বাল্টিক সাগরে ছুটির মৌসুম শুরু মিক্লেনবুর্গ-ওয়েস্টার্ন পমেরানিয়া জার্মানির প্রথম ফেডারেল স্টেট যেটি পর্যটকদের জন্য খুলে (২৫ মে থেকে) দেওয়া হচ্ছে৷ যার অর্থ, বাল্টিক সি এবং মিক্লেনবুর্গ লেক ডিস্ট্রিকের মত জনপ্রিয় স্থানে পর্যটকরা যেতে পারবেন৷ বেইজিংয়ের ফরবিডেন সিটি করোনা ভাইরাস প্রাদুর্ভাবের কারণে দীর্ঘ কয়েক মাস বন্ধ থাকার পর গত ১ মে থেকে খুলেছে চীনের বিখ্যাত ফরবিডেন সিটি৷ কঠোর নিরাপত্তায়
প্রচারের অভাবে নিভৃতে আয়ারল্যান্ডের মুসলমানরা

প্রচারের অভাবে নিভৃতে আয়ারল্যান্ডের মুসলমানরা

ক্যাথলিক গির্জার দেশ বলা হয় আয়ারল্যান্ডকে। দেশটিতে দ্রুত বিকাশমান ধর্ম হিসেবে ইতোমধ্যেই ইসলাম জায়গা করে নিয়েছে। আয়ারল্যান্ডে ৫০ হাজারের মতো মুসলমান বসবাস করেন। এটা মোট জনসংখ্যার ২ শতাংশ। তবে মুসলমানদের সংখ্যা ২০২০ সালে এক লাখে পৌঁছবে বলে আশা করা হচ্ছে। আয়ারল্যান্ডের প্রায় প্রত্যেক শহরেই মসজিদ ও মক্তব রয়েছে। আয়ারল্যান্ডের মুসলিম ছাত্রীরা হিজাব পরে স্কুলে যেতে পারে। সেখানে রয়েছে ইসলামি পোশাকের প্রচুর চাহিদা। সম্প্রতি আয়ারল্যান্ডের লিমেরিক শহরে এক বাংলাদেশি প্রথম ইসলামি পোশাকের দোকান খুলে বেশ নাম কামিয়েছেন। লিমেরিকে প্রায় দুই হাজারের অধিক মুসলমানের বাস। শহরটিতে ৪টি মসজিদ আছে। বর্তমানে আইরিশ বিশ্ববিদ্যালয় এবং শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোতে মুসলিম শিক্ষার্থীদের পছন্দের গন্তব্যে পরিণত হয়েছে। আয়ারল্যান্ডের মুসলিম ছাত্র সংগঠনগুলো ইসলাম ও মুসলমানদের ব্যাপারে সচেতনতা বৃদ্ধির জন্য প্রতিবছর ‘ইসলামিক
বাংলাদেশেও উদ্বেগ  ভারতে ‘লিফ মাইনর’

বাংলাদেশেও উদ্বেগ ভারতে ‘লিফ মাইনর’

একটি পোকার মারাত্মক আক্রমণে ভারতে টমেটো ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ার পর বাংলাদেশেও এ নিয়ে শঙ্কা দেখা দিয়েছে। কৃষিবিদ ও কীটতত্ত্ববিদরা বলছেন, ‘লিফ মাইনর’ নামে এই পোকার আক্রমণ হলে টমেটো ফলন মারাত্মকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হতে পারে।
খান জাহান-সুন্দরবনের বাগেরহাটে আসবেন যেভাবে

খান জাহান-সুন্দরবনের বাগেরহাটে আসবেন যেভাবে

ভৌগোলিক অবস্থান ধরলে দেশের দক্ষিণাঞ্চলের একটি জেলা বাগেরহাট। কিন্তু গুরুত্ব আর গন্তব্য বিচারে হযরত খান জাহান আলীর পূণ্যভূমি, অন্যতম বিশ্ব ঐতিহ্য সুন্দরবনের একটি অংশ এই জেলায়, দেশের অন্যতম প্রধান সমুদ্রবন্দর মংলাও এখানে।
নারকেল-সুপারির বাগানে ভরপুর বাগেরহাট

নারকেল-সুপারির বাগানে ভরপুর বাগেরহাট

নারকেল গাছের চিরল পাতার ফাঁকে বাতাসের ঝাপটা, সুউচ্চ সুপারি বাগান। দক্ষিণের জেলা বাগেরহাটে প্রবেশ করলেই যে কারও দৃষ্টি আকর্ষণ করবে সারি-সারি নারকেল ও সুপারি গাছ। গ্রামীণ পথের দু’ধারে অসংখ্য নারকেল-সুপারি বাগান। প্রতিটি বাড়িতে রয়েছে প্রচুর সংখ্যক নারকেল ও সুপারি গাছ। সবুজে ভরা এ জেলার ঐহিত্য যেন এই দুটি গাছ। নারকেল-সুপারির জন্য দেশ জুড়ে রয়েছে সুখ্যাতিও। বিস্তীর্ণ নারকেল ও সুপারি বাগারে ছায়া সুনিবিড় পরিবেশ আকৃষ্ট করে বাগেরহাটে আসা পর্যটকদের।